কেউ কি নিজেকে নিজে শিক্ষিত করে তুলতে পারে? অবশ্যই! এটার জন্য দরকার নিজের ইচ্ছা আর এমন এক আগ্রহ যা কাউকে চাকরীমুখী শিক্ষা থেকে আরও অনেক দূরে নিয়ে যাবে একটু বিস্তারিত বলা যাক 

১. কৌতূহলী হোন

কৌতূহল কোন কিছু জানার পূর্বশর্ত প্রশ্ন করার মাধ্যমে আপনি এমন অনেক কিছু খুঁজে পাবেন যা অনেক মানুষ জানে না এবং কখনো হয়তোবা জানবেও না

·         আপনি কত প্রশ্ন করবেন, তার কোন সীমা নেই

খেয়াল করে দেখবেন, অনেক মানুষই প্রশ্ন করলে বিরক্ত হয় আসলে, যে যত কম জানে, প্রশ্নের প্রতি সে তত কম ধৈর্যশীল, প্রশ্ন তাকে ঝামেলায় ফেলে দেয়

“I have no Special talents, I’m only passionately curious”
Albert Einstein
. অজানা বিষয় পড়ুন এবং দেখুন

নিজের জানার পরিধি থেকে বের হয়ে চিন্তার পরিধি আরও বড় করুন, দেখুন অন্য মানুষ কিভাবে চিন্তা করে

·         সারাজীবন কমিকস পড়েছেন, একটু উপন্যাস পড়ে আসুন

·         এতদিন শুধু ফিকশন দেখেছেন, এবার একটু ডকুমেন্টারি দেখুন

·         শুধু ক্লাসে শিক্ষকের লেকচার শুনতে শুনতে ক্লান্ত, বিখ্যাত লোকদের পাবলিক লেকচার শুনুন

. নিজেকে চ্যালেঞ্জ করুন

কৌতূহল মানেই হল, আপনি যানে অভ্যস্ত তা থেকে বের হয়ে আসা কখনো এমন হবে, যখন কোন কিছু খুব গভীরভাবে জানতে গিয়ে নিজেকে খুব বিপর্যস্ত আর বোকা মনে হবে এটা হয় যখন আপনার বর্তমান চিন্তাভাবনাকে পরিবর্তন করার মত কিছু একটা সামনে আসে এই সময় না থেমে বরং আরও সামনে আগাতে হবে; বিষয় সম্পর্কে আরও জানতে হবে, যা এতদিন আপনি এড়িয়ে চলেছেন

. বিভিন্ন ভাষা শিখুন

বিশ্বের নানা প্রান্তের বিভিন্ন ভাষার লেখা পড়ুন এমনকি, একই ভাষা একেক জায়গায় একেক রকম, সেগুলো জানুন এরকম ভাবার কোন কারন নেই যে, শুধু নিজ দেশ ছাড়া অন্য কোন লেখকের বই পড়া যাবে না পড়ার পরিধি বাড়ানোর মাধ্যমে আপনি এক ভাষা দিয়েই নিজের চিন্তাদর্শনকে আরও বৈচিত্রময় করে তুলতে পারেন

·         একটি ভাষায় নিজেকে যখন মোটামুটি দক্ষ মনে হবে, অন্য আরেকটি ভাষা শেখার চেষ্টা করুন

·         নতুন ভাষা শেখা মানে নিজেকে নতুন কোন সংস্কৃতির সাথে পরিচয় করানো

. স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয়ে যা পড়ান হয়, তার বাইরে জানার পরিধি বাড়ান

প্রাতষ্ঠানিক শিক্ষায় অনেক সময় শুধু প্রাথমিক জিনিস পড়ানো হয়, কিন্তু বাস্তবে আরও অনেক কিছু আছে কোন একটা বিষয়ে খারাপ করলেন, তো কি হয়েছে? আগে শিখতে পারেন নি, এখন শিখবেন প্রতিটা মানবমস্তিষ্কই প্লাস্টিক এবং চাইলে আপনি তাকে নতুন ভাবে সাজাতে পারেন পাঠ্যপুস্তক গুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিভিন্ন বিষয়ে সীমাবদ্ধ জ্ঞান দেয়, এটাকে কাজে লাগিয়ে আরও কিছু জানার চেষ্টা করুন হয়তোবা এটা পরীক্ষায় আসবে না, কিন্তু কর্মক্ষেত্রে এটাই আপনাকে সাফল্যের চূড়ায় নিয়ে যাবে আপনি যে আর সবার থেকে নতুন কিছু জানেন, এটা তারই প্রমান দেবে

. প্রতিদিন পড়ুন

পড়ার মাঝে বেশিদিন বিরতি না দিয়ে নিয়মিত পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন

·         বিশ্বের ইতিহাস পড়ুন এটা আপনাকে নানান সভ্যতার সাথে পরিচয় করিয়ে দেবে বিশ্ব ইতিহাস জানা বর্তমানকে বোঝার চাবিকাঠি এটা স্বশিক্ষার অন্যতম সেরা উপায়

·         আগে যারা স্বশিক্ষিত হয়েছেন তাদের সম্পর্কে জানার চেষ্টা করুন, স্খান থেকে অনেক অনুপ্রেরণা পাবেন অনেক উপদেশ পাবেন, যা আপনাকে স্বশিক্ষার পথে এগিয়ে নিয়ে যাবে

. সুশৃঙ্খল হোন

কোন ডেডলাইন নেই, কেউ কিছু বলবেও না তাই মাঝখানে গতি হারানোর সম্ভাবনা বেশি এজন্য নিজেকে একটু শৃঙ্খলার মধ্যে রাখতে হবে যাতে জানার আগ্রহ চলে না যায় অনুপ্রেরণা খোঁজার দায়িত্ব এখানে নিজের

. মত বিনিময় করুন

·         শিক্ষিত লোকদের সাথে কথা বলুন, তাদের মতামত জানুন বিভিন্ন সভা, সেমিনার লেকচারে যোগ দিন

·         স্কুলকলেজে সময় কাটান, নানান মানুষের সাথে পরিচয় হবে, এটা আপনাকে আর একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে

·         বড়দের কথা বোঝার চেষ্টা করুন, কারন তাদের অভিজ্ঞতা বেশি

. অনলাইনে যান

এত বিশাল জ্ঞানের ভান্ডার অনলাইনে আছে যা আপি কল্পনাও করতে পারবেন না। লাখ লাখ বই আপনি ফ্রি পড়তে পারবেন। MOOC বা Online Course শব্দের সাথে আমরা অনেকেই অপরিচিত হাজার হাজার অনলাইন কোর্স আছে যার অনেক গুলোই ফ্রি এগুলো আপনাকে আসলেই সাধারণ জ্ঞানের বাইরে নিয়ে যাবে এক জায়গায় বসে আপনি সারা বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিখ্যাত সব লোকদের কাছ থেকে শিখতে পারবেন শুধু তাই না, অন্যদেশের আরও শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময় করতে পারবেন ক্লাসে কোন পড়া বুঝতে পারেন নি, তো? অনলাইনে যান, একবার না বুঝলে দুইবার দেখুন, কোন বাঁধা নেই

১০. গবেষক হতে শিখুন

গবেষণা অনেক উত্তর খুঁজে পেতে সাহায্য করে কিন্তু বেশিরভাগ মানুষেরই সে ধৈর্য নেই এটা চমৎকার এক দক্ষতা গবেষণা করতে হলে পি,এইচ,ডি, করার দরকার নেই, নিজের ইচ্ছাই আসল যখনই কোন প্রশ্ন মাথায় আসবে, উত্তর খজতে নেমে পড়ুন, তাহলেই হবে কিভাবে আমাদের অর্থনীতি চলছে, সরকারি কাজ গুলো কিভাবে হয় কিংবা তারা কিভাবে তৈরি হয় এসবের প্রতিটিই জানার মত বিষয় নিজের চিন্তা শক্তি কাজে লাগান

 

স্বশিক্ষিত তো হলেন, এবার তা প্রয়োগ করাও আপনার দায়িত্ব এমন কিছু করুন যা মানুষকে ভাল কিছু এনে দেবে অন্য মানুষকেও জানান, তাদেরকে শ্বশিক্ষিত হতে উদ্বুদ্ধ করুন একজন স্বশিক্ষিত মানুষ চাইলে ব্যবধান গড়ে দিতে পারে, যা সাধারনের পক্ষে অসম্ভব কল্পনা মাত্র

শিখুন, শিখান আর দক্ষ হোন। “অসম্ভব” শব্দটাকে দূরে সরিয়ে দিন।

Leave a Reply